Blog

আগামী ২৪ এপ্রিল ২০২২ রবিবার অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের ২৪ বছর বা দুই যুগ পূর্তি!!! 23 Apr

আগামী ২৪ এপ্রিল ২০২২ রবিবার অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের ২৪ বছর বা দুই যুগ পূর্তি!!!

অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাকাল-অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাকাল ২৪ এপ্রিল ১৯৯৮।
অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের খ্যাতি এখন আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলেও মর্যাদার আসন পেয়েছে। একটি স্থানীয় বা আঞ্চলিক সামাজিক-সংস্কৃতিক সংগঠন হিসেবে আমরা যে সুনাম,মর্যাদা ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি অর্জন করেছি,বাংলাদেশে সম্ভবত এর কোনো দ্বিতীয় নজির নেই। এই অর্জনের জন্য আমরা গৌরবান্বিত বোধ করছি। আর এই গৌরব অর্জনের জন্য আমি অগ্রসর বিক্রমপুর কেন্দ্রীয় পর্ষদের পক্ষ থেকে আপনাদেরকে জানাচ্ছি বাসন্তি অভিনন্দন। যার অবদানের জন্য আজ আমাদের সংগঠন আজ এই মর্যাদার আসনে অভিষিক্ত হতে পেরেছে,তিনি হচ্ছেন এই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রাণ পুরুষ ড.নূহ-উল-আলম লেনিন। তাকে জানাই প্রাণঢালা অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা। কামনা করি তার সুস্থ,সক্রিয় দীর্ঘ জীবন।
পটভূমি-১৯৯৭ সালে লৌহজং এলাকার কয়েকজন বিশিষ্টজন ও তরুণ ড.নূহ-উল-আলম লেনিনের নেতৃত্বে বন্যাত্রাণের কাজে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। বন্যা পরবর্তী পুনর্বাসনের কাজের ক্ষেত্রেও তারা সক্রিয় ছিলেন। বলা যায় বন্যা-উত্তর পুনর্বাসনের কাজের সময়ই একটি অরাজনৈতিক সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন গড়ে তোলার তাগিদ সৃষ্টি হয়। সবাই মিলে নূহ-উল-আলম লেনিনকে এ ধরনের একটি সংগঠন গড়ে দেওয়ার অনুরোধ জানায়।আর এই অনুরোধে সাড়া দিয়েই তিনি ১৯৯৮ সালের ২৪ এপ্রিল প্রতিষ্ঠা করেন ‘অগ্রসর বিক্রমপুর’।
১৯৯৮ সালের ২৬ ডিসেম্বর দুঃস্থ ছাত্রদের মধ্যে বই বিতরণ ও সেলাই মেশিন বিতরণের মাধ্যমে প্রথম আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয়।সেই দিনের যাত্রা শুরুর পর আর আমরা পেছনে ফিরে তাকাইনি।
সংগঠনটি লৌহজং-উপজেলার সীমানা ছাড়িয়ে সম্প্রসারিত হয়েছে প্রথমে মুন্সিগঞ্জে,পরে শ্রীনগর, সিরাজদিখান এবং সর্বশেষ টঙ্গিবাড়ি উপজেলায়। সম্প্রসারণের প্রধান কারণ ও আকর্ষণ ছিল অগ্রসর বিক্রমপুর লৌহজং কেন্দ্র কর্তৃক প্রতিবছর ‘কৃতী শিক্ষার্থী ও গুণীজন সংবর্দ্ধনা’অনুষ্ঠানের নিয়মিত আয়োজনের চমৎকারিত্ব। কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনার প্রতি আগ্রহী করে তোলা,পরীক্ষায় তাদের এবং শিক্ষকদের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি জানিয়ে সংবর্দ্ধনা প্রদান এবং স্মারক উপহার ও সার্টিফিকেট প্রদান বিপুল উৎসাহের সঞ্চার করে। একইসঙ্গে এর সঙ্গে যুক্ত অন্যান্য কার্যক্রম শিশু-কিশোরদের কেবল লেখাপড়া বা ভালো রেজাল্ট করার প্রতিই আগ্রহী করে তোলে না,তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার স্পর্শ লাভ করে। দেশপ্রেম,মুক্তচিন্তা, বিজ্ঞান মনস্কতা এবং চিত্রকলা, সঙ্গীত, রচনা প্রতিযোগিতা, উপস্থিত বক্তৃতা ইত্যাদি শিশু-কিশোরদের কাছে অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনকে জনপ্রিয় করে তোলে।
ভিজিট করুন।। লাইক দিন।। ফ্রেন্ডস ইনভাইট করুন।। শেয়ার করুন।। রিভিউ দিন ।। কমেন্ট করুন ।।
fb/AgrasharBikrampurFoundation
fb/AgrasharBikrampurMagazine
fb/BikrampurMuseum
fb/BikrampurBihar
e-mail: info@agrashar-vikrampur.org
agrasharbikrampurbd@gmail.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *